The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২

ধুতি-পাঞ্জাবিতে লিঙ্গ বৈষম্যের বিরুদ্ধে বার্তা দিলেন স্বস্তিকা

ধুতি-পাঞ্জাবিতে লিঙ্গ বৈষম্যের বিরুদ্ধে বার্তা দিলেন স্বস্তিকা
ছবি: ইনস্টাগ্রাম

সাদাকে সাদা, কালোকে কালো বলতেই ভালোবাসেন ভারতের বাংলা সিনেমার নায়িকা স্বস্তিকা মুখোপাধ‍্যায়। এ জন্য তাকে ঠোঁটকাটা অভিনেত্রীও বলা হয়।

সম্প্রতি সামাজিকমাধ্যমে বেশ কয়েকটি ছবি পোস্ট করেছেন স্বস্তিকা। সেখানে তাকে দেখা গিয়েছে কালো পাঞ্জাবি ও সাদা ধুতিতে। হঠাৎ পুরুষের পোশাকে কেন সামনে এলেন অভিনেত্রী? 

স্বস্তিকা বরাবরই স্বাধীন চিন্তাভাবনাকেই গুরুত্ব দেন। এর আগে বহুবার স্বস্তিকা লিঙ্গ বৈষম্যর বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন তিনি। সে জায়গা থেকেই দাঁড়িয়েই এমন পোশাক পড়লেন স্বস্তিকা। তাকে এ রূপে সাজিয়েছেন ফ্যাশন ডিজাইনার অভিষেক রায়।

নিজের ধুতি পরা ছবি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করে স্বস্তিকা লেখেন, ‘আমরা নারীরা অনেক বেশি শক্তিশালী। আমাদের অন্য কারও প্রয়োজন পড়ে না নিজেদের বিশ্বাসকে তুলে ধরার জন্য। আমরা আজকেও দেবী, প্রত্যেকদিনই দেবী!’

স্বস্তিকা জানান, লিঙ্গভেদ মোছার বার্তা দিতে চেয়েছেন তিনি। ইদানীং পুরুষ অনায়াসে নারীর জন্য তৈরি বারোহাতি শাড়িতে নিজেকে জড়াচ্ছেন! দাড়ি-গোঁফ শোভিত চেহারাতেই ঘাড়ের কাছে হাতখোঁপা। তারা পারলে নারী নয় কেন? আর এমন বৈপ্লবিক বার্তা তো স্বস্তিকাই দিতে পারেন! তাই তাকেই মনের মতো করে সাজিয়েছেন পুরুষালি পোশাকে। যদিও এর আগে লিঙ্গসাম্যের কথা একাধিকবার বলেছেন সাংসদ-অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী ও নুসরত।

অভিষেক নিজে সর্বদা কালো পাঞ্জাবি পরেন। কালো তার প্রিয় রং। তাই কি একই রং স্বস্তিকার পরনেও? শিল্পীর কথায়, বার্তা দেওয়ার একাধিক রঙের মধ্যে কালোও ছিল। সাদা-কালো জুটিও আজীবনের। তাই কালো পাঞ্জাবির সঙ্গে মানানসই চুনোট ধুতির পাড়ে সূক্ষ্ম কালো সুতোর কাজ। তথাকথিত ধাক্কাপাড় নয় কিন্তু।

অভিষেকের দাবি, প্রথমে সবাই থমকে গিয়েছিলেন। কিন্তু স্বস্তিকা তো স্বস্তিকাই। তাই নিজের জোরে সবার হাততালি আদায় করে নিয়েছেন।

স্বস্তিকার মতে, নারী প্রতি দিনই দেবী। অস্বীকার করার উপায় নেই। বিশ্বাস করুন, আমরা শক্তিশালী। এর জন্য যাচাইয়ের প্রয়োজন নেই।