The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২

  • স্পা সেন্টারে অবৈধ কার্যকলাপ, ম্যানেজারসহ ৮ জন কারাগারে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য তৈরির দায়ে জরিমানা ইডেন ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত ৯ নেত্রীর আগাম জামিন যৌতুক না পেয়ে অন্ত:স্বত্ত্বা স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড নব নিযুক্ত ইন্সপেক্টজেনারেল অব পুলিশের সাথে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারের সৌজন্য সাক্ষাত মধুখালীতে গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত বাংলাদেশ: এনামুল হক শামীম বড়লেখায় মহাঅষ্টমীতে বিভিন্ন পুজামণ্ডপ পরিদর্শন করেছেন পরিবেশমন্ত্রী পুলিশের ওপর হামলা মামলায় ১০ জনের কারাদণ্ড সোনাগাজীতে লায়ণ স্পোর্টিং ক্লাবের রজতজয়ন্তী পালিত
  • মুখ খুললেন ব্যারিস্টার সুমন (ভিডিও)

    মুখ খুললেন ব্যারিস্টার সুমন (ভিডিও)

    যুবলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক পদ থেকে অব্যাহতি দেয়ার পরদিন মুখ খুলেছেন ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন। তিনি ফেসবুক লাইভে বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি, দল যখন সিদ্ধান্ত নেয় তখন দলের ভালো হবে এই চিন্তা করেই সিদ্ধান্ত নেয়। আমার এই সিদ্ধান্তে কোনো দ্বিমত নেই।’

    রোববার (৮ আগস্ট) দুপুর ১২টা ২৫ মিনিটের দিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের ভেরিফাইড পেজ থেকে এক ‘লাইভ’-এ এসব কথা বলেন তিনি।

    ব্যারিস্টার সুমন বলেন, বাংলাদেশ, জয় বাংলা এবং বঙ্গবন্ধু ওতপ্রোতভাবে জড়িত। যারা জয় বাংলা এবং বঙ্গবন্ধুকে বিশ্বাস করে না, তাদের নৈতিকভাবে কোনো অধিকারই থাকে না এই দেশে থাকার।

    তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু হচ্ছে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক। আমি শুধু এই কথা বলার চেষ্টা করেছি, এটি বুকে ধারণ করতে হয়। জয় বাংলা ও জয় বঙ্গবন্ধু এই স্লোগান হবে বাংলাদেশের স্বার্থে, আওয়ামী লীগের স্বার্থে, আপামর মানুষের স্বার্থে।

    ব্যারিস্টার সুমন বলেন, যারা আমার দল করেন তারা যদি আমার কথায় কষ্ট পেয়ে থাকেন তাহলে আমি ক্ষমা প্রার্থী। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত আমি জয় বাংলার লোক, আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের লোক।

    শনিবার (৭ আগস্ট) যুবলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয় ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনকে।

    যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল শনিবার (৭ আগস্ট) রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সংগঠনের গঠনতন্ত্র বিরোধী কর্মকাণ্ডে লিপ্ত থাকার অভিযোগে তাকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

    গত ৪ আগস্ট রাত ১২টা ১ মিনিটে শহীদ শেখ কামালের জন্মদিন উপলক্ষে শরীয়তপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের একটি দলীয় কর্মসূচিতে স্লোগান দিয়েছিলেন সদরের পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আক্তার হোসেন।

    "শুভ শুভ দিন শেখ কামালের জন্মদিন। জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু" ওই স্লোগানের ২৭ সেকেন্ডের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়। প্রকাশ্যে রাজনৈতিক প্রোগ্রামে অংশ নিয়ে স্লোগান দেয়ায় ওসি সরকারি বিধিমালা ১৯৭৯ লঙ্ঘন করেছেন এমন কথাও বলেন কেউ কেউ।

    এই ঘটনার পর যুবলীগ নেতা ব্যারিস্টার সুমন সবচেয়ে বেশি সমালোচনা করেন। ৬ আগস্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে লাইভে এসে ওসির এই স্লোগানের নিন্দা জানান ব্যারিস্টার সুমন।

    সূত্র জানায়, আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের রাজনীতিতে সম্পৃক্ত থেকে দল ও মুক্তিযুদ্ধের অনুপ্রেরণা স্লোগানের প্রতি বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখানোর কারণে ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।


    সর্বশেষ