The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১

এক ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী দুইজন! বিভ্রান্তিতে জনগণ

এক ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী দুইজন! বিভ্রান্তিতে জনগণ
ফাইল ছবি

রাজনগর (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি: মৌলভীবাজারের রাজনগরের কামারচাক ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে কে নৌকার প্রার্থী? এ নিয়ে উপজেলাজুড়ে চলছে আলোচনা। দলীয় প্যাডে এই ইউনিয়নে দুইজনকে মনোনয়ন দিয়ে দুটো প্রত্যয়নপত্র দেয়া হয়েছে দাবি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে। ফলে এখানে কে আওয়ামী লীগের প্রার্থী- তা নিয়ে সাধারণ মানুষের মাঝে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে কামারচাক ইউনিয়নে নজমুল হক সেলিমের নাম উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত একটি তালিকা প্রকাশ করা হয়। পরদিন বুধবার (২৪ নভেম্বর) সন্ধ্যায় শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদের উপজেলা আহ্বায়ক মো. আতাউর রহমানকে মনোনয়ন দিয়ে দলীয় প্যাডে একটি প্রত্যয়নপত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করে একটি পক্ষ। এতে ওই রাতে বিষয়টি নিয়ে উপজেলাজুড়ে আলোচনার ঝড় উঠে। 

ওই প্রত্যয়নপত্র দিয়েই নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হিসেবে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে বৃহস্পতিবার সকালে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন মো. আতাউর রহমান। 

বিষয়টি নিয়ে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি-সম্পাদক দলের হাইকমান্ডে যোগাযোগ করেন বলে জানায় একটি সূত্র। 

পরে বৃহস্পতিবার দুপুরে জানা যায়, নজমুল হক সেলিমকেই দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয়েছে বলে একটি দলীয় প্রত্যয়নপত্র দেয়া হয়। তার প্রত্যয়নপত্রে ২৩ নভেম্বর তারিখে প্রধানমন্ত্রী ও দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার স্বাক্ষর রয়েছে বলে দেখা যায়। এটিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে। 

তিনিও বৃহস্পতিবার বিকেলে মনোনয়ন ফরম পূরণ করে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হিসেবে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়ন জমা দেন। উভয়েই নিজেকে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ‘নৌকা প্রতীক’ পেয়েছেন বলে দাবি করছেন। 

নজমুল হক সেলিম (বাঁয়ে) ও  মো. আতাউর রহমান (ডানে)। ছবি: টিবিটি

এদিকে এই ইউনিয়নে প্রার্থী নিয়ে তৈরি হয়েছে জটিলতা। ‘কে আসল আওয়ামী লীগের প্রার্থী’ এ নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি হয়েছে। 

কে ‘আসল প্রার্থী’ বিষয়টি নিয়ে বিপাকে পড়েছেন স্বয়ং রিটার্নিং কর্মকর্তাও। কাকে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্র্থী হিসেবে ধরবেন, এ নিয়ে দ্বিধায় পড়েছেন তিনি। 

এ ব্যাপারে মো. আতাউর রহমানের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তা বন্ধ পাওয়া যায়।

কামারচাক ইউনিয়ন চেয়ারম্যান নজমুল হক সেলিম বলেন, ২৩ তারিখ রাতে আমার নামসহ উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের প্রার্থী ঘোষণা করা হয়। কিন্তু আমাকে প্রত্যয়ন না দিয়ে অন্য একজনকে প্রত্যয়ন দেয়া হয়েছে বলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখতে পাই। একটি পক্ষ জালিয়াতি করেছে বলে মনে হচ্ছে। বিষয়টি জেলা সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের মাধ্যমে কেন্দ্রে যোগাযোগ করলে তারা আমাকে দলীয় প্রার্থী করা হয়েছে বলে জানান এবং প্রত্যয়নপত্র পাঠান।

কামারচাক ও টেংরা ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং কর্মকর্তা গোলাম রাব্বানী খান বলেন, ওই ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের প্রত্যয়নসহ দুইজন মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। আমরা দুটোই রেখেছি। কোনটি সঠিক তা উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে পরে জানানো হবে।


সর্বশেষ

আরও পড়ুন