The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২

কোভিড চিকিৎসায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নতুন দুই পদ্ধতি

কোভিড চিকিৎসায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নতুন দুই পদ্ধতি
ছবি: সংগৃহীত

করোনা চিকিৎসায় নতুন দুটি পদ্ধতিকে ছাড়পত্র দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। বয়স্ক এবং কোমর্বিডিটিযুক্ত ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে এই পদ্ধতি ব্যবহারে প্রাণের ঝুঁকি কমাবে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞেরা।

প্রথম পদ্ধতিতে গুরুতর কভিড রোগীদের চিকিৎসার জন্য কর্টিকোস্টেরয়েডের সঙ্গে আর্থরাইটিসের ওষুধ ব্যারিসিটিনিব ব্যবহারের কথা বলা হয়েছে। ডব্লিউএইচও-র বিশেষজ্ঞ কমিটি জানিয়েছে, এ ক্ষেত্রে রোগীর ভেন্টিলেটরের প্রয়োজনীয়তা কমবে।

দ্বিতীয় ক্ষেত্রে বলা হয়েছে সোট্রোভিম্যাব নামে মনোক্লোনাল অ্যান্টিবডি ব্যবহারের মাধ্যমে চিকিৎসার কথা। ডায়াবেটিস বা ইমিউনোডেফিসিয়েন্সির মতো রোগী দীর্ঘ দিন ভোগা করোনা রোগীদের ক্ষেত্রে এই পদ্ধতি কার্যকর হতে পারে।

সুপারিশগুলো কোভিড-১৯ আক্রান্ত ৪০০০ জনেরও বেশি রোগীর ওপর করা সাতটি ট্রায়ালের মাধ্যমে প্রমাণের ভিত্তিতে করা হয়েছে বলে আল-জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

ফরাসি এনজিও মেডেসিনস সানস ফ্রন্টিয়ারস (এমএসএফ) বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নতুন সুপারিশগুলোকে স্বাগত জানিয়েছে এবং সরকারকে করোনা মোকাবিলায় এই পদ্ধতিগুলোকে অনুমোদনের আহ্বান জানিয়েছে যাতে যতটা সম্ভব মানুষ এই চিকিৎসা থেকে উপকৃত হতে পারে।

গত দু বছরে কোভিড-১৯ চিকিৎসায় হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইনিন, প্লাজমা থেরাপি, রেমডিসিভির ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে ডাব্লিউএইচও। আবার পরে সেই সুপারিশ বাতিলও করা হয়েছে। এ ক্ষেত্রে ডাব্লিউএইচও -র পক্ষে যুক্তি দেওয়া হয়েছে, প্রাথমিক পর্যবেক্ষণে করোনা রোগীর চিকিৎসায় কার্যকরী মনে হলেও চূড়ান্ত পরীক্ষায় তার প্রমাণ মেলেনি।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ২০২০ সালে কর্টিকোস্টেরয়েড ব্যবহার করার পরামর্শ দিয়েছিল। যা গত ২০২১ সালের জুলাই মাসে কোভিড-১৯ এর চিকিৎসার তালিকায় "জীবন রক্ষাকারী" ইন্টারলিউকিন-৬ রিসেপ্টর ব্লকার হিসেবে ব্যবহারের অনুমোদন পায়।