The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২

‘আমিও প্রেমে পড়েছি, মনও ভেঙেছে’

‘আমিও প্রেমে পড়েছি, মনও ভেঙেছে’
টলিউড অভিনেত্রী পায়েল সরকার। ছবি: সংগৃহীত

টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী পায়েল সরকার। ‘বোঝেনা সে বোঝেনা’ সিনেমায় বোকাসোকা জয়িতা কিংবা ‘প্রেম আমার’-এর চটপটে রিয়া; চিরচেনা বাঙালি নারীর রূপে বরাবরই প্রশংসিত পায়েল। যদিও এই সময়ে এসে তিনি অনেকটা পরিবর্তন এনেছেন নিজের মধ্যে। সোশ্যাল মিডিয়ায় যেমন খোলামেলা ছবি দেন, আবার পর্দায়ও হাজির হন সাহসী রূপে।

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে পায়েল সরকারের নতুন সিনেমা ‘জালবন্দি’। এর ফাঁকে আরেকটি সিনেমা ‘এনক্রিপ্টেড’-এর প্রচার চালাচ্ছেন। সবমিলিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন অভিনেত্রী।

সিনেমার প্রচারের স্বার্থেই কলকাতার একটি গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছেন পায়েল। সেখানে তিনি তার প্রথম প্রেম ও ব্রেকআপের কথা জানান। পায়েল বলেন, ‘আমি যখন ১৫-১৬ বছর বয়সী, তখন প্রথম প্রেমে পড়েছিলাম। আবার সেটা ভেঙেও যায়। মন ভাঙার পর হতাশ না হয়ে ভেবেছি, জীবনে আরও বড় কিছু অপেক্ষা করছে। জীবনে বাধা আসবে, কিন্তু উঠে দাঁড়াতে হবে।’

 

পায়েল বলেন, তিনি সময় কাটান তার প্রিয় সঙ্গী সিনেমা ও ওয়েব সিরিজ দেখে। অন্ধকার ঘরে সিনেমা দেখার সঙ্গে অনলাইন থেকে খাবার অর্ডার করে খেতে পছন্দ করেন। 

বন্ধু নির্বাচনের বিষয়ে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘আমাদের ঠিক পরের প্রজন্মকে দেখি কিছু একটা ঘটলে, প্রেমে আঘাত বা মন ভাঙলে চরম একটা সিদ্ধান্ত নেয়। কেন তারা এরকম সিদ্ধান্ত নেয়? তাদের কি ধৈর্য্য কম, নাকি সহ্য ক্ষমতা নেই? যদিও এখন সোশ্যাল মিডিয়া বড় একটা প্রভাব ফেলছে। এ বিষয়ে একটা প্রশিক্ষণ দরকার।’

নেট মাধ্যমে অপরিচিত কারও সঙ্গে প্রেমে বিশ্বাসী নন পায়েল। তার কথায়, ‘একজনকে না চিনে শুধু সোশ্যাল মিডিয়ার আলাপে ডেটে যাওয়া সম্ভব নয়। প্রেমে এত মরিয়া নই আমি।’

তিনি বলেন, ‘আমার বন্ধু খুব কম। পেশা ও বন্ধুত্ব দুটো আলাদা। তবে বন্ধু নেই বললে ভুল হবে। আমরা পার্টি করি, কিন্তু ইনস্টাগ্রামে ছবি দেই না। আমি জানি আমার এই কম বন্ধু কখনো আমার পেছনে কথা বলবে না।’