The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২

নোবিপ্রবিতে দ্বিতীয় জাতীয় খাদ্য প্রযুক্তি ও পুষ্টি বিজ্ঞান বিষয়ক সেমিনার

নোবিপ্রবিতে দ্বিতীয় জাতীয় খাদ্য প্রযুক্তি ও পুষ্টি বিজ্ঞান বিষয়ক সেমিনার

মানিক ভূঁইয়া, নোয়াখালী প্রতিনিধি: নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) দ্বিতীয় জাতীয় খাদ্য প্রযুক্তি ও পুষ্টি বিজ্ঞান শীর্ষক সেমিনার ২০২২ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানে নোবিপ্রবির এফটিএনএস বিভাগের চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) মৌমিতা দের সভাপতিত্বে মঙ্গলবার (২১ জুন ২০২২) নোবিপ্রবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. দিদার-উল-আলম অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন।

তিনি বলেন  “পুষ্টি খাতে গবেষণার মানউন্নয়নে বাজেট আরও বৃদ্ধি করতে হবে। একই সাথে বলেন বেঁচে থাকার জন্য সুষম খাদ্যের প্রয়োজন। পুষ্টিকর খাবার গ্রহণের মাধ্যমে আমাদের স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে হবে”।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, নোবিপ্রবির উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আবদুল বাকী, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ফারুক উদ্দিন, অধ্যাপক ড. মো: আমিনুল হক ভূইয়া, মৌমিতা দে, অধ্যাপক ড. শিরীন নিগার, চেয়ারম্যান, পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি বিভাগ, যশোরবিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং মো: ইমরুল হাসান, দ্বিতীয় বিজ্ঞান ভিত্তিক সেশনে, বাংলাদেশের বর্তমান জনস্বাস্থ্য পরিস্থিতি বিষয়ে মূল্যবান বক্তব্য প্রদান করেন। অধ্যাপক মো: নিজামুল হক ভূঁইয়া,Session Chair, INFS, DU, General Secretary, Dhaka University Teacher’s Association), ivnvbyi Avjg ( Organizing Co-Chair), মো: রাহানুর আলম, অধ্যাপক ড. একে ওবায়দুল হক, এফটিএনএস বিভাগ, মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

মা ও শিশুর সুস্বাস্থ্য, খাদ্যাভাস পরিবর্তন, খাদ্য নিরাপত্তা, জনস্বাস্থ্য বিষয়ক আলোচনা উক্ত সেমিনারের মূল প্রতিপাদ্য। বাংলাদেশের বর্তমান প্রেক্ষাপটে, শিশু এবং নারীরা বিভিন্ন ধরনের অপুষ্টির শিকার যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল জন্মের সময় ওজন স্বাভাবিকের চেয়ে কম থাকা, কৃশকায়, খর্বাকৃতি এবং বিভিন্ন অনুপুষ্টির অভাব।

তাছাড়া খাদ্যে ভেজাল, কীটনাশকের মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহার, খাদ্য সংরক্ষণ পদ্ধতির অনিয়মিত প্রয়োগ আমাদের স্বাস্থ্য এবং পুষ্টির অভাববো আরো বহুগুনে বাড়িয়ে দেয় যা কোনভাবেই কাম্য নয়। আলোচ্য সেমিনারের মাধ্যমে অংশগ্রহণকারীরা এই সকল বিষয়ে সম্যক ধারনা লাভ করে এবং তাদের সৃজনশীলচিন্তা ও গঠনমূলক মতামত প্রদানের সুযোগ লাভ করে যা ভবিষ্যতে তাদের খাদ্য ও পুষ্টি নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে কাজ করতে আগ্রহী করে তুলবে।

প্রসঙ্গত উক্ত সেমিনারে রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়এবং পাশাপাশি অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও অংশগ্রহণকারীরা অংশগ্রহণ করেন। অংশগ্রহণকারীদের থেকে সেমিনার বিষয়ক পোস্টার আহবান করা হয়েছে এবং সেরা তিনজন পোস্টার প্রেজেন্টেশনকারীকে সার্টিফিকেট ও পুরস্কার প্রদান করেন নোবিপ্রবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. দিদার-উল-আলম।