The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

অন্য পুরুষের সঙ্গে কথা বলায় স্ত্রীকে গাছের সঙ্গে বেঁধে মারধর

অন্য পুরুষের সঙ্গে কথা বলায় স্ত্রীকে গাছের সঙ্গে বেঁধে মারধর
সংগৃহীত

স্ত্রীকে তাঁর বন্ধুর সঙ্গে দেখেছিলেন স্বামী। আর এতেই ক্ষোভ চাপে মাথায়। সে ক্ষোভের জেরে গাছের সঙ্গে বেঁধে স্ত্রীকে মারধর করেছেন স্বামী। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের রাজস্থান রাজ্যের বাঁশওয়ারা জেলায়।

এদিকে, বন্ধুর সঙ্গে দেখার পর স্ত্রীকে নির্যাতনের একটি একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ওই ভিডিওতে, গাছের সঙ্গে বেঁধে স্ত্রীকে নির্দয়ভাবে মারধর করতে এবং ভুক্তভোগীকে যন্ত্রণায় চিৎকার করতে দেখা যায়। রোববার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

সংবাদমাধ্যমটি বলছে, ভুক্তভোগী ওই নারীকে সাত ঘণ্টা গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখা হয়েছিল। অন্যদিকে, যে ব্যক্তির সঙ্গে তাঁকে (নারীকে) দেখা গিয়েছিল তাঁকেও অভিযুক্তরা একইভাবে নির্যাতন করেছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওগুলোর একটিতে, তাঁকে একটি গাছের সঙ্গে বেঁধে একদল পুরুষকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে দেখা গেছে।

এনডিটিভি বলছে, বন্ধুর সঙ্গে দেখার পর ভারতের রাজস্থান রাজ্যের বাঁশওয়ারা জেলায় এক নারীকে গাছের সঙ্গে বেঁধে লাঞ্ছনা করা হয়। দিন চারেক আগে সে ঘটনার ভিডিও প্রকাশিত হয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এরপর গত রাতে রাজ্যটির স্থানীয় থানায় একটি এফআইআর নথিভুক্ত করা হয়।

এদিকে, নির্যাতনের শিকার ওই নারীর স্বামী ও তাঁর শ্যালকসহ চার জনকে আটক করেছে পুলিশ। একই সঙ্গে দুই নাবালককেও আটক করা হয়েছে।

অপরদিকে, রাজস্থান রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে রাজ্য সরকারের সমালোচনা করেছেন বিজেপি নেতারা। ভিডিওটি শেয়ার করে ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গজেন্দ্র সিং শেখাওয়াত টুইট করে বলেছেন : ‘রাজস্থানের স্বরাষ্ট্র দপ্তর গুন্ডাদের মুক্ত করে রেখেছে এবং তারা ক্ষুধার্ত নেকড়েদের মতো বনে ঘুরে বেড়াচ্ছে। এ ভিডিওটির তদন্ত করা এবং দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন। কিন্তু, এই সরকারের কাছে তা প্রত্যাশা করা অর্থহীন। আমাদের আওয়াজ তুলতে হবে!’