The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২

তিন বছর পর ওয়ানডে দলে ফিরেই বিজয়ের দুর্দান্ত ব্যাটিং

তিন বছর পর ওয়ানডে দলে ফিরেই বিজয়ের দুর্দান্ত ব্যাটিং
ছবিঃ সংগৃহীত

তিন বছর পর ওয়ানডে দলে ফিরেই নিজের ‘জাত’ চেলালেন এনামুল হক বিজয়। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজে প্রথম ওয়ানডেতে দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলে ফিরেছেন সাজঘরে। এর আগে ২০১৯ সালের জুলাইয়ে সবশেষ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৫০ ওভারের ম্যাচে তাকে মাঠে দেখা গিয়েছিল।

হারারে স্পোর্টস ক্লাবে শুক্রবার (০৫ আগস্ট) জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচে নাজমুল হোসেন শান্তর পরিবর্তে বিজয়কে ফেরানো হয় একাদশে।

এক সময়ের ওপেনার ওয়ান ডাউনে নেমে পরিচয় দেন নিজের যোগ্যতার। ৪৭ বল মোকাবিলায় ৪ বাউন্ডারি ও ২ ছক্কার সাহায্যে তুলে নেন নিজের ওয়ানডে ক্যারিয়ারের চতুর্থ ফিফটি। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে লিটনকে সঙ্গ দেয়ার পর, সঙ্গ দিয়েছেন মুশফিকুর রহিমকেও।

তবে সেঞ্চুরির পথে এগোতে থাকা বিজয় লংঅনে ধরা পড়েন ভিক্টর নাইয়াচির বলে ক্যাচবন্দি হয়ে। ৬২ বলে ৬ চার ও ৩ ছক্কার মারে ৭৩ রানে থামে তার ব্যাট। লিটন অবশ্য এদিন আউট হননি। তাকে মাঠ ছাড়তে হয়েছে ইনজুরিতে পড়ে স্ট্রেচারে চড়ে।

ইনিংসের ৩৪তম ওভারে সিকান্দার রাজার করা প্রথম বলে সিঙ্গেল নেয়ার জন্য ছুটছিলেন, ক্রিজে পৌঁছানোর আগেই ব্যথা অনুভব করলে মাঠে শুয়ে পড়েন লিটন। পরে স্ট্রেচারে করে মাঠ ছাড়তে হয়েছে টাইগার ওপেনারকে। ধারণা করা হচ্ছে, পেশীতে টানের ফলেই চোট পেয়েছেন। রিটায়ার্ড হার্ট হওয়ার আগে ৮৯ বলে ৮১ রান করেছেন লিটন। এর আগে ক্যারিয়ারের সপ্তম ফিফটি ছুঁয়েছিলেন ৭৫ বলে। যদিও ফিফটি পূর্ণ করার পরই বোলারদের ওপর চড়াও হন এ ওপেনার। শেষ ১৪ বলে করেছিলেন ২১ রান। এদিন সপ্তম বাংলাদেশি হিসেবে ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটে ৫ হাজার রান পূর্ণ করেছেন লিটন।

এদিকে তিন বছর পর বিজয়কে দলে ফিরতে পোহাতে হয়েছে বেশ কাঠখোড়। সবশেষ ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে ব্যাট হাতে গড়েছেন রেকর্ড। লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ইতিহাসে ১১৩৮ রান করে গড়েছেন বিশ্বরেকর্ড। এরপর নতুন করে আলোচনায় বিজয়। নির্বাচকদের মন জয় করে তিনি জায়গা করে নেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে। তবে ৫০ ওভারের ম্যাচে রেকর্ড গড়ে তিন বছর পর লাল সবুজ জার্সি গায়ে জড়ানো বিজয়কে নামানো হয় টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে। সেখানে ব্যাট হাতে দ্যুতি ছড়াতে না পারায় তার জায়গা হয়নি ওয়ানডে সিরিজে।

যে ফরম্যাটে আলো ছড়িয়ে জাতীয় দলের টিকিট পেলেন, সে ফরম্যাটে কেন নেই তিনি, এ নিয়ে হয়েছে বেশ সমালোচনা। শেষ পর্যন্ত জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজে তিনি ফিরলেন তার প্রিয় ফরম্যাটে। তিন বছরের বিরতি শেষে মাঠে ফেরার আগে ৩৫ ইনিংসে ৩০ গড়ে ওয়ানডেতে তার রান ছিল ১০৫২। হাঁকিয়েছেন সমান তিনটি করে ফিফটি ও সেঞ্চুরি।