The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

৩৫ হাজার টাকা ভরিতে বিক্রি হচ্ছে যেসব স্বর্ণ

৩৫ হাজার টাকা ভরিতে বিক্রি হচ্ছে যেসব স্বর্ণ
ছবি: সংগৃহীত

স্বর্ণের বাজারে বর্তমানে প্রতি ভরি স্বর্ণের মূল্য ৭০ হাজার টাকা। কিন্তু চট্টগ্রামে বাসাবাড়ি থেকে চুরি করা স্বর্ণ বিক্রি হচ্ছে ৩৫ হাজার টাকা ভরি। কিছু অসাধু স্বর্ণ ব্যবসায়ী চোরদের কাছ থেকে এই দামে কিনে নিচ্ছেন স্বর্ণ। স্বর্ণ ব্যবসায়ী ও চোর সিন্ডিকেটের ২ সদস্যসহ তিনজনকে গ্রেফতারের পর স্বর্ণ বিকিকিনির এমন তথ্যই পেয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, গত বৃহস্পতিবার নগরীর ফিরিঙ্গিবাজার এলাকা থেকে গ্রিল কাটার সরঞ্জামসহ মো. শরীফ ও মো. আবদুল জলিল নামে দুই পেশাদার চোরকে গ্রেফতার করে কোতোয়ালি থানা পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে তারা পুলিশকে জানায়, তাদের কাছ থেকে চোরাই স্বর্ণ কেনে প্রণব ধর নামে এক স্বর্ণ ব্যবসায়ী। পরে তাদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী প্রণব ধরকেও পুলিশ গ্রেফতার করে।

শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) কোতোয়ালি থানার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়, গ্রেফতার হওয়া শরীফ ও জলিল পেশাদার চোর। গত প্রায় ৮ বছর ধরে তারা নগরীর বিভিন্ন স্থানে ৭শ এর বেশি চুরির ঘটনা ঘটিয়েছে।

স্বর্ণ ব্যবসায়ী প্রণব ধর তাদের বিনিয়োগকারী। বিভিন্ন বাসাবাড়িতে চুরি করে পাওয়া স্বর্ণ তারা প্রণব ধরের কাছে বিক্রয় করে। বর্তমানে স্বর্ণের বাজার মূল্য ৭০ হাজার টাকা ভরি হলেও প্রণব ধর দেন ৩৫ হাজার টাকা।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. নেজাম উদ্দিন বলেন, শরীফ ও জলিল অত্যন্ত দুর্ধর্ষ চোর। গত কয়েকমাসে তারা নগরীর নন্দনকানন, সিরাজউদ্দৌলাহ রোড ও রহমতগঞ্জ এলাকার তিনটি বাসা থেকে ৮১ ভরি স্বর্ণ ও নগদ টাকাসহ বিভিন্ন সামগ্রী চুরি করেছে।

গ্রেফতারের পর জিজ্ঞাসাবাদে তারা এসব চুরির কথা স্বীকার করেছে। তাদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী প্রণব ধর নামে এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে সে চোরাই স্বর্ণালংকার কমদামে কেনে বলে স্বীকার করে।

চোরাই স্বর্ণ কেনার পাশাপাশি সে চুরির কাজে অর্থ বিনিয়োগ করেছে। শরীফ ও জলিল ইতিপূর্বে বেশ কয়েকবার পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়ে হাজতবাস করলেও জামিনে বের হয়ে আবার তারা চুরির কাজে জড়িয়ে পড়ে।