The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২

  • ‘দেশে আর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হবে না’ প্রধানমন্ত্রীর জন্যই সারাদেশে শান্তির সুবাতাস বইছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ন্যাটোতে যোগ দেওয়ার ‘ত্বরিৎ’ আবেদন করেছে ইউক্রেন বিএনপির বক্তব্য ও রডের মাথায় জাতীয় পতাকা একসূত্রে গাঁথা: তথ্যমন্ত্রী লঘুচাপ সৃষ্টির পূর্বাভাস, বাড়তে পারে বৃষ্টি পুতিনকে ‘রক্তপিপাসু’ বললেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট পাবনায় কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে যুবককে হত্যা দুর্গাপূজার সাথে মিশে আছে চিরায়ত বাংলার ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি: রাষ্ট্রপতি মোল্লাহাটে শিশু কিশোর কিশোরী কার্যালয়ের যুগপূর্তি অনুষ্ঠিত বিএনপির মিথ্যাচারে দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী
  • সংবাদ সম্মেলনে দাঁড়িয়ে থাকা নিয়ে যা বললেন সাবিনা

    সংবাদ সম্মেলনে দাঁড়িয়ে থাকা নিয়ে যা বললেন সাবিনা
    ছবি: সংগৃহীত

    নারী ফুটবলে বাংলাদেশের ইতিহাসের সর্বোচ্চ সাফল্য এনে দিয়েছেন সাবিনা খাতুন, কৃষ্ণা রানি সরকার, সানজিদা খাতুনরা। নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের মুকুট জিতেছে বাংলার অদম্য মেয়েরা। সামগ্রিক ফুটবলেই যা বাংলাদেশের জন্য বিরাট কীর্তির। ইতিহাস গড়া মেয়েদের যোগ্য সম্মানও দেওয়া হয়েছে।

    ছাদখোলা বাসে ট্রফি প্যারেড করে বাফুফে ভবনে নিয়ে যাওয়া হয় চ্যাম্পিয়ন দলকে। যা বাংলাদেশের ক্রীড়া ইতিহাসে প্রথম। কিন্তু ঘরে ফিরেই কিনা অবহেলিত দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট জেতা মেয়েরা। কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন, অধিনায়ক সাবিনা খাতুনসহ আরও কয়েক ফুটবলারকে অনাহুত অতিথির মতো পেছনে দাঁড় করিয়ে, নিজেরা চেয়ারে বসে সংবাদ সম্মেলন করলেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) কর্তারা।

    শুনতে অবাক লাগলেও এমনই হয়েছে সোনালী শিরোপা নিয়ে ঘরে ফেরা চ্যাম্পিয়ন দলের সঙ্গে। চ্যাম্পিয়ন মেয়েদের বসার জায়গা ছিল না বিশাল অর্জনের জানান দেওয়ার এই সংবাদ সম্মেলনে, কোচ ছোটনও ঠাঁয় দাঁড়িয়ে থেকেছেন। অথচ ছাদখোলা বাসে তপ্ত রোদে পুড়ে কয়েক ঘণ্টার প্যারেড শেষে বাফুফে ভবনে পৌঁছান মেয়েরা।

    কর্মকর্তাদের ভিড়ে সংবাদ সম্মেলনের মঞ্চে অধিনায়ক সাবিনা খাতুন চেয়ারে বসার সুযোগ পেলেও দাঁড়িয়ে থাকতে হয় কোচ গোলাম রব্বানী ছোটনকে। অধিনায়কের প্রশ্ন-উত্তর পর্ব শেষে সাংবাদিকরা যখন কোচ ছোটনকে প্রশ্ন করেন তখন সৌজন্যতা বশতই নিজের চেয়ার ছেড়ে দিয়ে কোচকে বসে উত্তর দেওয়ার সুযোগ করে দেন সাবিনা। 

    যার অক্লান্ত পরিশ্রমে বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল সাফ চ্যাম্পিয়ন হলো সেই কোচকেই শিরোপা জয়ের পর সংবাদ সম্মেলনে চেয়ারে বসতে না দেওয়ায় দেশজুড়ে কঠোর সমালোচনা হয়। 

    শুধু তাই নয়, সংবাদ সম্মেলনের মাঝপথে সেখানে উপস্থিত হন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি ও ক্রীড়া সচিব মো. মেজবাহ উদ্দিন।  

    ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ও ক্রীড়া সচিবকে জায়গা ছেড়ে দিতেই সংবাদ সম্মেলনে চেয়ার ছেড়ে দিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে হয় সাফজয়ী দলের অধিনায়ক সাবিনা ও কোচ ছোটনকে। তাদের দাঁড়িয়ে থাকার এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই সমালোচনার ঝড় বয়ে যায়। 

    সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে যাওয়া সেই ছবি শেয়ার করে সাফজয়ী বাংলাদেশ নারী দলের অধিনায়ক লিখেছেন- আমার বিনীত অনুরোধ, এটাকে কেউ নেতিবাচক দৃষ্টিতে দেখবেন না। নেতিবাচক চোখে দেখে দয়া করে আমাদের জীবনের সেরা দিনটি নষ্ট করবেন না। আসুন সবাই ইতিবাচক হই এবং উপভোগ করি। শুধু বলতে চাই, আমরা আপনাদের ভালোবাসি।

    ভাইরাল হওয়া সেই ভিডিওর কমেন্টে আমিরুল ইসলাম বাবুল নামে এক ফেসবুক ব্যবহারকারী লিখেছেন-যাই ঘটুক,যারা সফলতা এনেছে তাদের দাঁড় করিয়ে রেখে নির্লজ্জের মতো সংবাদ সম্মেলন জাতির কাছে কি বার্তা দেয়।

    আহমেদ জুনায়েদ নামে একজন লেখেন-এই সোনার বাংলায় আরও কতো কিছু দেখতে হবে, যাদের জন্য এই আয়োজন, তাদের জন্য দুইটা চেয়ার মেনেজ করতে পারলো না, হায়রে বাফুফে!


    সর্বশেষ