The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১

ইরানের পরমাণু বিজ্ঞানীকে রিমোট কন্ট্রোলড অস্ত্র দিয়ে হত্যা করেছে মোসাদ

ইরানের পরমাণু বিজ্ঞানীকে রিমোট কন্ট্রোলড অস্ত্র দিয়ে হত্যা করেছে মোসাদ
প্রতীকী ছবি

দ্য নিউইয়র্ক টাইমস শনিবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, রিমোট কন্ট্রোলড বা দূর নিয়ন্ত্রিত কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার (এআই) স্নাইপার মেশিন গান দিয়ে ইরানের প্রধান সামরিক পরমাণু বিজ্ঞানী মোহসেন ফখরিজাদেহকে মোসাদ হত্যা করেছে।

২০২০ সালের নভেম্বর মোহসেন নিহত হওয়ার পর থেকেই কিভাবে তাকে হত্যা করা হলো তা নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছিল।  তাকে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার (এআই) অস্ত্র দিয়েই হত্যা করা হয়েছে বলে সম্প্রতি জেরুসালেম পোস্ট নিশ্চিত করেছে।

মোহসেনকে যখন হত্যা করা হয়, তখন একাধিক গোয়েন্দা সূত্র জেরুসালেম পোস্টকে জানিয়েছিলেন,  এই হত্যাকাণ্ড ইরানের পরমাণু কর্মসূচির জন্য বড় ধরনের ধাক্কা। 

প্রতিবেদনে জানা গেছে, আবসার্দ শহরের যাওয়ার প্রধান মহাসড়কে মোসাদের ইরানি এজেন্ট একটি নীল নিসান পিকআপে ওই দূর নিয়ন্ত্রিত মেশিন গান নিয়ে অপেক্ষা করছিলেন। দুপুর ১টার দিকে হামলাকারীরা জানতে পারে মোহসেন আর স্ত্রী সশস্ত্র দেহরক্ষীদের নিয়ে গাড়িতে  আবসার্দ শহর ছেড়ে যাচ্ছে। ওই শহর অনেক অভিজাত ইরানি নাগরিকদের অবকাশ যাপন কেন্দ্র। 

এরপর ১৬শ কিলোমিটার দূরে ইসরাইল থেকে ওই হামলা পরিচালনা করা হয় বলে ওই প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে। মূল হামলাকারীরা অনেক আগেই ইরান ছেড়ে গিয়েছিল বলে দাবি করা হয়েছে।

হামলায় উন্নতমানের রোবোটিক যন্ত্রের সঙ্গে সংযুক্ত বেলজিয়ামের তৈরি এফএন এমএজি মেশিনগানের একটি বিশেষ মডেল ব্যবহৃত হয়েছিল বলে প্রতিবেদনে জানা গেছে।

অস্ত্রটি কয়েকমাস ধরে ছোট ছোট অংশে ভাগ করে ইরানে আনা হয়েছিল। কারণ একবারে পুরো অস্ত্রটির ওজন প্রায় এক টনের মতো বলে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

মোহসেনকে দূর নিয়ন্ত্রিত অস্ত্র নাকি সরাসরি হত্যা করা হয়েছে, তা নিয়ে ইরান, ইসরাইল ও এমনকি পুরো বিশ্বেই কম জল ঘোলা হয়নি। তবে এবার এই বিতর্কের অবসান ঘটল বলে ধারণা করা হচ্ছে।


আরও পড়ুন