The Bangladesh Today | Uniting people everyday

ঢাকা শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে টাইগার যুবাদের হার

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে টাইগার যুবাদের হার
ছবিঃ সংগৃহীত

প্রথম তিনটিতে টানা জয়। আফগানিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট দলের বিপক্ষে যেন উড়ছিল বাংলার যুবারা। কিন্তু সিরিজের শেষ দুই ম্যাচে হেরে ৩-২ ব্যবধানে সিরিজ জিতেই সন্তুষ্ট থাকতে হচ্ছে মেহরাব-আইচ মোল্লাদের।

আজ রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) সিরিজের ৫ম তথা শেষ ম্যাচে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে আফগান বোলারদের তোপের মুখে মাত্র ১৫৫ রানে অলআউট হয়ে যায় বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। এরপর বল হাতে লড়াই চালিয়ে গেলেও আফগানদের হারানো যায়নি। শেষমেশ ৩ উইকেটের জয় তুলে নেয় আফগান যুবারা।

১৫৬ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই দুই ওপেনারকে হারিয়ে বিপর্যয়ে পড়ে আফগানিস্তান। টাইগারদের পক্ষে দুটি উইকেটই নেন আশিকুর জামান। তবে তৃতীয় উইকেট জুটিতে আবারও ঘুরে দাঁড়ায় সফরকারীরা। মোহাম্মদউল্লাহ নাজিবকে সঙ্গে নিয়ে ৪৯ রানের জুটি গড়েন ইসহাক জাজাই।

৫০ বলে ১১ রান করে নাজিব ফেরার পরের ওভারেই বিলাল আহমেদকে বোল্ড করেন নাইমুর রহমান নয়ন। বাংলাদেশের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়ানো ইসহাককেও সাজঘরে ফেরান আশিক। নাঙ্গেয়ালিয়া খারোটে বোল্ড করেন আইচ মোল্লা। শেষমেশ ৩ বল হাতে রেখেই আফগানিস্তানের জয় নিশ্চিত করে তবেই মাঠ ছাড়েন নাভিদ। ৪৯ বলে ২৯ রান করেন তিনি। অধিনায়ক ইজাজ করেন ৭৭ বলে ৩২ রান।

বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট শিকার করেন আশিকুর জামান। এছাড়া মুশফিক হাসান, নাইমুর রহমান এবং আইচ মোল্লা একটি করে উইকেট পান।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ভালো শুরু পেয়েছিল বাংলাদেশের দুই ওপেনার মহফিজুল ইসলাম রবিন এবং ইফতিখার হোসেন ইফতি। দলীয় ৪৮ রানে নাঙ্গেয়ালিয়া খারোটের বলে এলবিডব্লিউ হন ৩৯ বলে ১১ রান করা রবিন। এরপরই ধ্বস নামে টাইগার যুবাদের ব্যাটিং লাইনআপে। আফগান বোলারদের তোপে একের পর এক উইকেট হারাতে থাকে স্বাগতিকরা।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৭ রান আসে আবদুল্লাহ আল মামুনের ব্যাট থেকে। অর্থাৎ চল্লিশ ছুঁতে পারেননি কেউ। অতিরিক্ত খাতা থেকে যোগ হওয়া ২৬ রান দলের সংগ্রহ বাড়িয়েছে। আফগান বোলারদের মধ্যে বিলাল সামি আর নানগেয়ালিয়া খারোতে নিয়েছেন ৩টি করে উইকেট। এছাড়া নাভিদ এবং শাহিদুল্লাহ ২টি করে উইকেট শিকার করেন। 


আরও পড়ুন